নির্মাতা

মাহফুজ নাজিম মাপেল

[email protected]

Lakshmiara, Feni Sadar, Bangladesh.

মাহফুজ নাজিম মাপেল (জন্ম এপ্রিল ১৭, ১৯৯৪-ফেনী) একজন বাংলাদেশী স্বাধীন চলচ্চিত্রকার, চিত্রনাট্যকার এবং অ্যানিমেটর। শৈশব-কৈশোরে ছবি আঁকা, বই পড়া, কবিতা ও ছোটগল্প দিয়ে তার অল্পবিস্তর লেখালিখির হাতেখড়ি হয়। তিনি পুরকৌশলে ডিপ্লোমা শেষ করে ভারতে পাড়ি জমান স্নাতক পড়তে, কিন্তু অচিরেই তিনি তার নিজের মধ্যে অনুভব করেন নান্দনিক চৈতন্য প্রবাহ, ফলস্বরূপ অনুধাবন করেন ইঞ্জিনিয়ারিং তার জন্য নয়; তার জন্ম হয়েছে শিল্পের জন্য। উত্তর ভারতের সনামধন্য লাভলী প্রফেশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে তিনি "অ্যানিমেশন এন্ড মাল্টিমিডিয়ায়" স্নাতক সম্পন্ন করেন। তিনি প্রগাঢ় অনুভব স্পর্শিত দৃষ্টিতে দেখেন এ পৃথিবীকে, দেখেন প্রকৃতি ও সামাজিক জীবনের নানা স্তরে প্রবহমান নানা গল্পের অস্তিত্ত্বকে। এসকলই মানবিকতা ও শিল্পের নিরিখে তুলে আনতে চান তার চলচ্চিত্রের ভাষায়। 
 ফিল্মোগ্রাফিঃ ২০২০- দ্য ফ্লাওয়ারস অব রোডসাইড, ২০২০- অখন্ড অবসর , ২০২১- দংশন, ২০২১- "ইনভার্টেড কমা"

দংশন__The Rickshaw Puller

ভিউ

173

শেয়ার করুন

চোর-দুর্নীতিবাজ ও লুটেরাদের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধুর বজ্রকন্ঠে সেই অকাট্য বাণী থেকে অণুপ্রাণিত হয়ে "দংশন" ছবিটি নির্মিত হয়। শ্রেণিবিভক্ত এ সমাজের প্রান্তিক পর্যায়ের এক রিকশাচালক ও এক প্রৌঢ় আরোহীর কথোপকথনের মধ্য দিয়ে ছবিটি এগিয়ে চলে। আরোহী যখন তার যাত্রাপথের ক্লান্তি ঘুঁচাতে কথাচ্ছলে তাঁর আত্মীয়ার জরুরী প্রয়োজনের জন্য গচ্ছিত টাকা হারিয়ে যাবার কথা বলে তখন আচমকা রিকশাচালকের তার জীবনে শ্রমবিহীন অর্থ প্রাপ্তির কথা মনে পড়ে যায়। তার রিকশায় গন্তব্যে পৌঁছে যাওয়া এক আরোহীর ভাড়া প্রদানকালে তাড়াহুড়োয় তার অজান্তে পড়ে যাওয়া টাকা গোপনে তুলে নেয় রিকশাচালক। এরপরে বিলাস ব্যসন, এমনকি প্রমোদ বালার পিছনেও ব্যয় করে সে টাকার এক অংশ। কিন্তু পথে চোরকে প্রহার, আরোহীর সাথে নানা কথার প্রভাবে রিকশাচালকের মধ্যে পরিবর্তন আসে। এ টাকা বৈধ নয়, এর মালিক সে নয়। দংশিত হতে থাকে বিবেকের তাড়নায়। ফলস্বরূপ শেষ দৃশ্যে দেখা যায়, রিকশাচালক নিজে অবমুক্ত করে নিজেকে এক অর্থ লোভ ও অর্থ লালসা হতে। এ দংশন ছবিটি আমাদেরকে বঙ্গবন্ধুর দুর্নীতিবিরোধী বক্তব্যকে একটি জায়গায় ঐক্য এনে দেয়, তাহলো, একটি দরিদ্র সমাজের প্রতিভূ যদি অর্থ লোভ হতে বিবেকের দংশনে নিজেকে মুক্ত করতে পারেন, কেনো ধনীক দুর্নীতিবাজ মানুষেরা তা পারেন না?